নিরাপদ সড়ক ও রেললাইন দাবি মানিকগঞ্জে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

নিরাপদ সড়ক ও রেললাইন দাবি
মানিকগঞ্জে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট :

নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে মানিকগঞ্জে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে।
দিবসটি উপলক্ষে শনিবার (১৩ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের জোকায় দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।

নিরাপদ সড়ক ও রেললাইন স্থাপনের দাবি জানিয়ে মানববন্ধন ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হয়। এতে অংশ নেয় মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব, ঢাকা-মানিকগঞ্জ-পাটুরিয়া রেললাইন বাস্তবায়ন আন্দোলন কমিটি, বারসিক, তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীর স্মৃতি পরিষদসহ বেশ কয়েকটি সামাজিক সংগঠন।

এ সময় সামাজিক আন্দোলনের নেতা দীপক কুমার ঘোষ বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করেও এ মহাসড়ক দুর্ঘটনা কমেনি। তাই সড়ক দুর্ঘটনা কমানোর জন্য সড়ক প্রশস্তকরণ, রেললাইন স্থাপন ও ট্রাফিক ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে।

মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি গোলাম ছারোয়ার ছানুসহ অন্যরা এ সড়কে রেললাইন স্থাপনের দাবি তুলে সড়কের বেপরোয়া যানবাহন নিয়ন্ত্রণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আরও তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান।

এছাড়া, ঘটনা স্মরণে শনিবার আয়োজিত কর্মসূচি থেকে নিরাপদ সড়ক ও রেললাইনের দাবি জানানো হয়।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে আজকের এই দিনে ‘কাগজের ফুল’ সিনেমার শুটিং স্পট দেখে মানিকগঞ্জের শালজানা থেকে ঢাকা ফিরছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও সাংবাদিক মিশুক মুনীরসহ আরও পাঁচজন। এ সময় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের জোকা নামক স্থানে চুয়াডাঙ্গাগামী ডিলাক্স পরিবহনের একটি দ্রুতগতির বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এ ঘটনায় তারেক মাসুদ, মিশুক মুনীর, প্রডাকশন সহকারী ওয়াসিম, জামাল ও চালক মুস্তাফিজুর রহমান নিহত হন। এ ছাড়া আহত হন তারেকের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ, ঢালী আল মামুন ও তার স্ত্রী দেলোয়ারা বেগম জলি।