আগামী নির্বাচনে বিএনপি বিরোধী দলে থাকবে- নৌমন্ত্রী

শহিদুল ইসলাম
নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার চোখে ছানি পড়েছে। তাই তিনি বর্তমান সরকারের কোন উন্নয়ন চোখে দেখেন না। কিছু উন্নয়ন দেখলেও টেকশই গণতন্ত্র নেই বলে তিনি মন্তব্য করছেন। দেশে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে। সে নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আ’লীগ আবার ক্ষমতায় আসবে। আর বিএনপি বিরোধী দলের আসনে বসবে।
মন্ত্রী আরোও বলেন, খালেদা জিয়া সরকারের আমলে দেশের অবস্থা ছিল এমন- উপরে ফিট-ফাট আর ভিতরে সদর ঘাট। কিন্তু শেখ হাসিনার সরকারের সময় তা পাল্টে গেছে। যারা নদী দখল ও দুষন করে নদীকে হত্যা করছে তাদের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। বর্তমান সরকার দেশের সকল নদী দখলমুক্ত ও নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। প্রতিকূলতা সত্ত্বেও আগের চেয়ে নৌপথ এখন সাশ্রয়ী, পরিবেশ বান্ধব ও নিরাপদ। আগের তুলনায় নৌ-দুর্ঘটনা কমে এসেছে।
গতকাল রবিবার বিকেলে মংলা বন্দর হতে চাঁদপুর-মাওয়া-গোয়ালন্দ হয়ে পাকশী পর্যন্ত নৌ-রুটের নাব্যতা উন্নয়নে ড্রেজিং কাজের উদ্বোধন শেষে পাটুরিয়া বাস টারমিনালে আয়োজিত সুধি সমাবেশে মন্ত্রী এ সব কথা বলেন।
জানা গেছে, এ প্রকল্পের আওতায় পদ্মা-গঙ্গা-কচা-স্বরুপকাঠি-আমতলী ও আড়িয়াল খাঁ নদীর ৪৫০ কিলোমিটার অংশে ড্রেজিং করা হবে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ নৌ-বাহিনী এ বছরের জুলাই থেকে ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত ৩৫০ লাখ ঘনমিটার পলি অপসারণ করবে। ৮৯৫ কোটি টাকা ব্যয় সাপেক্ষ এ প্রকল্পে ১০০ মিটার প্রস্থ এমনকি শুষ্ক মওসুুমে কম পক্ষে ৪ মিটার গভীর নৌপথ সৃষ্টি হবে। নদী খননে এ সরকার ১৪টি ড্রেজার সংগ্রহ করেছে। বর্তমানে আরোও ২০টি ড্রেজার সংগ্রহের কাজ চলছে। পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ভারী মালাপত্র নৌপথে নিরাপদ পরিবহন ও সহজতর করার লক্ষ্যে এ ড্রেজিং প্রকল্প শুরু করা হয়েছে।
বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান কমডোর এম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে মানিকগঞ্জ- আসন এমপি এএম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, নৌ মন্ত্রণালয় ভারপ্রাপ্ত সচিব মোঃ আবদুস সামাদ, মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম মহীউদ্দীন, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান, শিবালয় উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক এমএ কুদ্দুস বিএ, উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান আলী আহসান মিঠু, ইউএনও কামাল মোহাম্মদ রাশেদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এ সময় বিআইডব্লিউটিএ ও টিসি’র উর্দ্ধতন কর্মকতা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন ।