এইচএসসি পরিক্ষার্থীরা সাবধান ! প্রশ্ন ফাঁসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

শহিদুল ইসলাম
২ এপ্রিল শুরু হতে যাওয়া উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে এক শ্রেণীর প্রতারক চক্র হিন উদ্দেশ্যে ও মনগড়া প্রশ্নপত্র তৈরী এবং অপপ্রচারে লিপ্ত থাকতে পারে। ইতিপূর্বে অর্থ লোভী এ কুচক্রী মহলের ধোঁকাবাজিতে প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজবে কান দিয়ে বহু কোমলমতি শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন বিনষ্ট হয়েছে।
তবে, এবার প্রতিটি বিষয়ে প্রশ্নপত্রের একাধিক সেট ও সঠিক প্রশ্নপত্র পরীক্ষা শুরুর আগে ডিজিলাইজড পদ্বতির ব্যবহার গ্রহন করায় তা ফাঁসের সুযোগ থাকছে না। কিন্তু প্রতারক চক্র হয়তো বসে নেই। এরা বিভিন্ন পন্থায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অপচেষ্টা ও তা বিলির জন্য উঠেপড়ে লাগতে পারে। এর বিরুদ্ধে আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যারা সজাগ রয়েছে। সম্ভাব্য সকল স্তরে নজরদারী বৃদ্ধি করায় প্রতারক চক্রের বেশ কিছু সদস্য ইতোমধ্যে আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের হাতে ধরা পড়েছে।
একাধিক সূত্র জানিয়েছে, যেসব শিক্ষার্থী পরিক্ষার আগে প্রশ্নপত্রের খোঁজ করবে তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ নজরদারী থাকবে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবদেরে শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে। প্রশ্ন ফাঁস ও সংগ্রহের অপচেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে সামাজিক ও গনযোগাযোগের মাধ্যমে সহজেই ধরা সম্ভব হবে। উচ্চ প্রযুক্তির মাধ্যমে মোবাইল ফোন, ফেসবুক ও অন্যান্য বিষয়ে কঠোর নজরদারী থাকবে।
গত কয়েক বছর প্রশ্ন ফাঁসের অপচেষ্ঠার বিরুদ্ধে এবার খোদ প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে বহুমুখী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীদের স্বার্থ বিবেচনা করে প্রশ্ন ফাঁস প্রতিরোধে কঠোর নজরদারী ও আধুনিক কৌশল গ্রহণ করা হয়েছে। তাই শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের দু:চিন্তামুক্ত হয়ে আসন্ন পরিক্ষায় অংশ গ্রহনের প্রস্ততি নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।