দৌলতপুরের কলিয়ায় রাস্তা মেরামত প্রকল্পে অনিয়ম-দূর্ণীতির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার:
মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার কলিয়া ইউনিয়নে রাস্তা সংস্কার ও পূন:নির্মাণের জন্য মাটি ভরাটের কাজে অনিয়ম ও দূর্ণীতির অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।
অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২২ দিন আগে কলিয়া ইউনিয়নের উয়াইল ইমান আলীর দোকান হতে আহলিয়া পর্যন্ত রাস্তায় গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কার প্রকল্পে বিশেষ বরাদ্দে ৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে মাটি ফেলার কাজ শুরু হয়। প্রকল্পের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন কলিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল মৃধা ও সদস্য সচিব ৮ নং ওয়ার্ডের আ’লীগ সভাপতি মো. সবুরুদ্দিন। এছাড়া, আরও ৩ জন সদস্যসহ মোট ৫ জন উক্ত প্রকল্পের কমিটিতে রয়েছেন। প্রকল্পে উয়াইল ইমান আলীর দোকান হতে আহলিয়া পর্যন্ত পুরো রাস্তায় মাটি না ফেলে অর্ধেক রাস্তা পর্যন্ত মাটি ফেলা হয়েছে।
এলাকাবাসীর অভিযোগ এখানে ৩ লক্ষ টাকার মধ্যে ১ লক্ষ টাকার কাজও করা হয়নি। এ বিষয়ে সঠিক তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

কলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানাসহ এলাকাবাসী বলেন, উক্ত প্রকল্পে চরম দূর্ণীতি ও অনিয়ম করা হয়েছে। পুরো রাস্তায় কাজ না করে অর্ধেক অংশ কাজ করা হয়েছে। আর উক্ত প্রকল্পে ১ লক্ষ টাকার বেশি ব্যয় করা হয়নি।

এ বিষয়ে প্রকল্পের সভাপতি বাবুল মৃধা বলেন, প্রকল্পে নিয়মনীতি মেনেই কাজ হয়েছে। কাজে কোন ঘাটতি নেই। কোন দুর্ণীতি ও অনিয়ম করা হয়নি। আর ৩ লক্ষ টাকার কাজই করা হয়েছে। যারা উক্ত কাজ পায়নি তারা এ ধরনের অভিযোগ তুলছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা জানান, এ সংক্রান্ত এলাকা থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।