নাগরপুরে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা আহত ১

মোঃ সাইফুল হোসেন, টাঙ্গাইল : নাগরপুরে সংখ্যালঘূদের উপর হামলায় একজন হাসপাতালে ভর্তি আছে বলে জানা যায়। গত ১০ অক্টোবর বেলা ৪ ঘটিকার সময় এই হামলার ঘটনাটি ঘটে। ঘটনা সূত্রে জানা যায় নাগরপুর উপজেলার ধুবড়িয়া গ্রামের মনোহর চন্দ্র দাসের ছেলে বিশ্বনাথ চন্দ্র দাস ৫২ পার্শ্ববর্তী বাড়ীর দলু শেখের ছেলে সামেজ উদ্দিন ৫২ এর নিকট হইতে ২ শতাংশ জমি ৮০ হাজার টাকা মূল্য নির্ধারণ করিয়া ৭৫ হাজার টাকা নগদ প্রদান করে এবং জমি রেজিস্ট্রি-দলিল করিয়া দিতে বলিলে সামেজ টালবাহানা করিতে থাকে। এমতাবস্থায় গতকাল এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সুযোগ বুঝিয়া সামেজ তাহার উগ্রপন্থী লোকজন নিয়ে বিশ্বনাথের বাড়ীতে ঢুকে তার পুত্র নিমাই চন্দ্র দাসকে (৩০) একা ঘরে পেয়ে লোহার রড ও গাছের ডাল দ¦ারা এলোপাথারীভাবে প্রহার করে। তার ডাক-চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে এবং স্থানীয় লোকজনদের সহযোগীতায় তাকে ঐ দিনই গুরুতর অবস্থায় নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য-কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে বিশ্বনাথ বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে নাগরপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযুক্তরা হলো- সামেজ উদ্দিন (৫২), নারগিস আক্তার (৩০) স্থানীয় নামধারী সাংবাদিক পারভিন আক্তার (৩২) ও জুলেখা আক্তার (৫০)। এ ব্যাপারে তদন্ত্রকারী অফিসার এস.আই. ফারুক হোসেন জানান তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।