মানিকগঞ্জের ঘিওরের ভাষা সৈনিক আব্দুল হাকিম মাস্টার আর নেই

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট ॥

মানিকগঞ্জের ঘিওরের ভাষা সৈনিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক কমরেড আব্দুল হাকিম মাস্টার আর নেই (ইন্নালিল্লাহি………. রাজিউন)। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। রবিবার (১৪ মার্চ) রাত ২টার দিকে ঘিওর উপজেলা সদরের তার নিজ বাসায় বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে দুই মেয়ে ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। ভাষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক হলেও নিভৃতপল্লীর এ ভাষাসৈনিকের ভাগ্যে জোটেনি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি। জীবদ্দশায় তার শেষ ইচ্ছে ছিল ভাষা সৈনিক হিসেবে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পাওয়া।
১৫ মার্চ সোমবার দুপুরে ঘিওর ডিএন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রথম জানাজা শেষে তাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। নিহতের কফিনে সালাম প্রদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তার, ঘিওর থানার ওসি রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বিপ্লবের নেতৃত্বে জেলা পুলিশ বাহিনীর সদস্যবৃন্দ। এরপর মরদেহ নেওয়া হয় তার কর্মস্থল তেরশ্রী কে এন ইনস্টিটিউশন মাঠে। তার জন্মস্থান দৌলতপুর উপজেলার কলিয়া ইউনিয়নের ধামশ্বর গ্রামে শেষ নামাজে জানাজার পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

উল্লে­খ্য, কর্মজীবনে কমরেড আবদ্লু হাকিম মাস্টার তেরশ্রী কেএন ইনস্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। ৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ’৭১-এর মহান স্বাধীনতা যুদ্ধ অংশগ্রহণ করেন। ১৯৪৯ সালে আবদুল হাকিম মাস্টার তেরশ্রী কেএন ইনস্টিটিউশনের ছাত্র থাকাকালে ভাষা আন্দোলনে যুক্ত হয়ে পড়েন।

তার মৃত্যুতে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোক প্রকাশ করেন, মানিকগঞ্জ-১ আসনে সংসদ সদস্য এ এম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম, ঘিওর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি আবুল ইসলাম শিকদার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার মোমিন উদ্দিন খান।