মানিকগঞ্জের বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ সাবেক অধ্যক্ষ বখশী জাহাঁগীর আলী মিঞার ইন্তেকাল

মানিকগঞ্জের বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ সাবেক অধ্যক্ষ বখশী জাহাঁগীর আলী মিঞার ইন্তেকাল

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেরার চকহরিচরণ গ্রামের বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ, সাবেক অধ্যক্ষ আলহাজ্জ্ব বখশী জাহাঁগীর আলী মিঞা উয়ায়েছি ১০ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেলেন। শুক্রবার সকাল আটটার দিকে মানিকগঞ্জ ১০০-শয্যাবিশিষ্ট করোনা ডেডিকেটেডে হাসপাতালে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি—- রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৮১ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই পুত্র, এক কন্যা, ২ নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী ও ভক্তবৃন্দ রেখে গেছেন।

মানিকগঞ্জ জেলা শহরের সরকারী দেবেন্দ্র কলেজ প্রাঙ্গনে বাদ জুম্মা মরহুমের প্রথম জানাজা এবং তাঁর গ্রামের বাড়ি দৌলতপুর উপজেলার চকহরিচরণ গ্রামের বড়বাড়ি প্রাঙ্গনে বাদ আছর দ্বিতীয় জানাজাশেষে তাকে পারিবারিক কবরাস্থানে দাফন করা হয়।

বখশী জাহাঁগীর আলী মিঞা ২০০২ সালে মানিকগঞ্জের ঘিওর সরকারী কলেজ থেকে অধ্যক্ষ হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন। এর আগে তিনি রাজশাহী সরকারী কলেজ, মাদারীপুর সরকারী নাজিমুদ্দীন কলেজ, মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর কলেজের অধ্যক্ষ, নোয়াখালীর চৌমুহনী কলেজ এবং কুমিল্লার মতলব কলেজের দর্শণ বিভাগে শিক্ষকতা করেন।

শিক্ষকতার পাশাপাশি তিনি ছিলেন একজন ইসলামী চিন্তাবিদ, লেখক এবং গবেষক। তিনি ‘মুজাদ্দিদ- যুগে যুগে’ এবং ‌’পাকপাঞ্জাতন ও আহলে বায়েত’সহ বেশকয়েকটি গ্রন্থ রচনা করেন। তিনি বাংলাদেশ তরিকত অনুসারী পরিষদের প্রেসিডয়াম মেম্বার ছিলেন। তিনি উয়ায়েছি তরিকার মাধ্যমে ধর্ম প্রচারের ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। তিনি ইরানের ধর্মীয় নেতার আমন্ত্রণে বাংলাদেশের ১১ সদস্যের প্রতিনিধিদলের সদস্য হিসেবে ইরান ও ইরাক সফর করেন। এছাড়া, ভারতের কলিকাতা, দিল্লী, আজমীর আগ্রা সফর করেন।

বখশী জাহাঁগীর আলী মিঞা ১৯৪০ সালে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার চকহরিচরণ গ্রামের বড়বাড়ি জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর স্ত্রী সালেহা খানম বাংলা বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক হিসেবে অবসর গ্রহণ করেছেন।
শিক্ষাজীবনে, মরহুম বখশী জাহাঁগীর আলী মিঞা ১৯৬০ সালে নিজ এলাকার দৌলতপুর পিএস হাই স্কুল থেকে মেট্রিকুলেশন ও ১৯৬২ সালে টাঙ্গাইলের করোটিয়া সাদত কলেজ থেকে আই এ পাশ করেন। ১৯৬৫ সালে রাজশাহী বিশ্বদ্যিালয় থেকে দর্শণ শাস্ত্রে অনার্স এবং ১৯৬৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাশ করেন।