মানিকগঞ্জে মুড়ি তৈরির কারখানাসহ ৪ প্রতিষ্ঠান মালিককে জরিমানা  

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মুড়ি তৈরি ও মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য, নকল কসমেটিকস, কোমল পানীয় ও জুস বিক্রির দায়ে একটি কারখানা ও তিনটি স্টেশনারি  দোকান মালিককে জরিমানা করেছে মানিকগঞ্জে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

রবিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার টাউন বাজার ও বেউথা এলাকায় অভিযান চালিয়ে মুড়ি তৈরির কারখানা ও তিনটি স্টেশনারির দোকানকে মোট ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল।

আসাদুজ্জামান রুমেল জানান, জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস স্যারের নির্দেশনায় মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার টাউন বাজার ও বেউথা এলাকায় অভিযান চালানো হয়।  অভিযানে মুড়ি তৈরির কারখানা বিথী ফুডস প্রডাক্টসে  দিয়ে দেখা যায় মুড়ি তৈরির শ্রমিকরা খালি হাতে ও পায়ে স্তুপকৃত মুড়ির ওপর দিয়ে হাটাচলা করছে এবং  অস্বাস্থ্যকর মেঝেতে মুড়ি প্যাকেটজাত করছে। প্যাকেটে মুড়ি উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ না থাকার কারনে বিথী ফুডস প্রডাক্টস কারখানার মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া, কারখানার পরিবেশ উন্নয়ন ও মোড়কজাত বিধি মেনে পণ্য বিক্রয় করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

মেয়াদোত্তীর্ণ শিশু খাদ্য, নকল কসমেটিকস, কোমল পানীয় ও জুস বিক্রির অপরাধে শহরের যমুনা জেনারেল স্টোরকে ৪ হাজার, যমুনা স্টেশনারিকে ৮ হাজার ও দিলীপ স্টোর মালিককে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি আরও বলেন,  দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ ও নকল ভেজাল প্রতিরোধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।