শিবালয়ে আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস পালিত

শিবালয়ে আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস পালিত

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট

আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস পালন উপলক্ষে শিবালয় উপজেলা প্রশাসনে উদ্যোগে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণীর আয়োজন করা হয়। এ বছর এ দিবসের প্রতিপাদ্য হচ্ছে. “ মানব কেন্দ্রিক পুনরুদ্ধারের জন্য স্বাক্ষরতা: কমে আসুক ডিজিটাল বৈষম্য।”

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) শিবালয় উপজেলা সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউর রহমান খান।

শিবালয় উপজেলা সহকারী কমিশনার-ভূমি এসএম আবু দারদার সভাপতিত্বে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুনা আক্তার, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রিয়াজুর রহমান, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. পলাশ হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা সুদীপ ঘোষ বাসু অন্যান্যে মধ্যে বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন শিবালয় উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার রাশেদ আল মামুন ।

বিশেষ অতিথি সুদীপ ঘোষ বাসু বলেন, জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা বা ইউনেস্কো  ঘোষিত একটি আন্তর্জাতিক দিবস হচ্ছে আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস। ১৯৬৬ সালের ২৬ অক্টোবর ইউনেস্কোর সাধারণ সম্মেলনের ১৪তম অদিবেশনে ৮ সেপ্টেম্বর তারিখকে ‘আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৯৬৭ সারে প্রথমবারের মত দিবসটি উৎযাপন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু দেশ থেকে নিরক্ষরতা দুর করতে এবং শিক্ষাকে অবৈতনিক ও বাধ্যতামুলক হিসেবে ঘোষনা করেন। স্বাক্ষরতা বিস্তাতে আন্তর্জাতিক ফোরামের সঙ্গে একাত্বতা প্রকাশ করে বাংলাদেশে ১৯৭২ সালে প্রথমবারের স্বাক্ষরতা দিবস উৎযাপিত হয়।

তিনি আরও বলেন, ২০১১ সালের আদম শুমারী অনুসারে শিবালয় উপজেলা স্বাক্ষরতার শতরার হার ছিল ৫৩.৩ জান। বর্তমানে তা অনেকাংশেই বৃদ্ধি পেয়েছে।

প্রধান অতিথি বলেন, “স্বাক্ষরতা বৃদ্ধির জন্য অবৈতনিক প্রাথমিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বাংলাদেশে বর্তমানে স্বাক্ষরতা হার ৭৫ দশমিক ৬ যা ২০১১ সালে ছিল মাত্র ৫৭ দশমিক ৭। প্রধান মন্ত্রীর চেষ্টায় স্বাক্ষরতা হার বাড়ছে। বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ে পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রী এখন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা দিচ্ছে।”