শিবালয়ে ইলিশ রক্ষায় ৩৬১ জনের জেল-জরিমানা অবশেষে চাল বিতরণ

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট ॥
শিবালয় উপজেলার পদ্মা যমুনায় মা ইলিশ নিধোন রোধে অবশেষে সরকারি খাদ্য সহায়তা প্রকল্পের আওতায় ৩টি ইউনিয়নে তালিকাভূক্ত জেলেদের মাঝে চাল বিতরণ করা হয়। উপজেলার শিবালয়, তেওতা ও আরুয়া ইউনিয়নের ২ হাজার ৮২৯ জন মৎস্যজীবিকে ২০ কেজি করে এ খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়। জানা গেছে, খাদ্য সহায়তা প্রকল্পের আওতায়ভূক্ত জেলেরা যাতে নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ ধারা থেকে বিরত থাকে সে উদ্দেশ্যে সরকার পবিবার প্রতি ২০ কেজি হারে চাল বরাদ্দ দেয়। অভিযান শুরুর প্রাক্কালে খাদ্য বিতরণ না করায় জীবিকার তাগিদে অনেকেই আইন অমান্য করে নদীতে মাছ ধরতে যায়। এদের কেউ কেউ জেল-জরিমানার শিকার হয়।
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রফিকুল আলম জানান, এ প্রকল্পের অধীনে শিবালয় ও আরুয়া ইউনিয়নে তালিকাভূক্ত জেলেদের মাঝে গতকাল বৃহস্পতিবার চাল দেয়া হয়। আজ শুক্রবার তেওতা ইউনিয়নের জেলেদের চাল দেয়া হবে। অপরদিকে, ১ থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত মা ইলিশ নির্ধন রোধ অভিযান চলবে। গত ১৯ দিনে অভিযানে ৩৬১ জনকে করা আটক হয়। শিবালয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামাল মোহাম্মদ রাশেদের ভ্রাম্যমান আদালতে আটকৃতদের ১৩১ জনকে ১ মাস থেকে ১ বছর পর্যন্ত কারাদন্ড প্রদান করা হয়। বাকীদের নিকট থেকে ৫ লক্ষ ৯৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। আটকতৃদের অধিকাংশ ফরিদপুর, রাজবাড়ী, পাবনা ও মানিকঞ্জ জেলার বাসিন্দা। অভিযানে এ যাবৎ আটক সাড়ে ৫ লক্ষ গণমিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল ও অন্যান্য উপকরণ পুড়িয়ে দেয়া হয়।