শিবালয়ে ইলিশ শিকারের দায়ে ৫৪ জনের অর্থদন্ড

শহিদুল ইসলাম !
মানিকগঞ্জের পদ্মা-যমুনায় নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ শিকারের অপরাধে ৫৪ জনকে আটক করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এ সময় প্রায় দু’লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে পুরিয়ে দেয়া হয়। ৭ অক্টোবর ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শিবালয় ইউএনও কামাল মোহাম্মদ রাশেদ আটককৃত প্রত্যেককে তিন হাজার ৫শ’ টাকা করে ও মানসিক প্রতিবন্ধী এক ব্যক্তিকে এক হাজার টাকা অর্থদন্ড করে ছেড়ে দেয়া হয়। পাটুরিয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ি ও উপজেলা মৎস্য বিভাগ যৌথভাবে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

আটকৃতরা হলেন, শিবালয় উপজেলার দেবীনগর গ্রামের নছির উদ্দিনের ছেলে মিরাজ উদ্দিন (৬৫), ছোট কুকোরন্ড গ্রামের মৃত-ঠাকুর হালদারের ছেলে গৌরহালদার (৪০), ঘোরী হালদারের ছেলে দ্বীরেন হালদার, মৃত শামজদ্দিনের ছেলে মাইনদ্দিন (৩৮), বাউলিকান্দা গ্রামের পরেশ হালদারের ছেলে সুজন হলদার (১৭), অনীল হলদারের ছেলে সুধীর হলদার (৩০), সতীশ হলদারের ছেলে বাসুদেব হলদার (৩০), মোহনের ছেলে নিত্য হলদার (৩৫), অনিলের ছেলে প্রকাশ হলদার (২৮), আনন্দ হলদারের ছেলে তাপস হলদার (২৮), মালুচী গ্রামের নিজাম প্রমানিকের ছেলে শফি (৩৫), জমদুয়ারা গ্রামের আব্দুল আলীর ছেলে সেলিম শেখ (২৫), আলোকদিয়া গ্রামের মৃৃত-আরশাদ কাজীর ছেলে মোজাহার কাজী (৪৭), ইসলাম শেখের ছেলে ইয়াকুব শেখ (৩৫), ইয়াকুব শেখের দু’ছেলে আলমাছ শেখ (২৭) ও বিল্লাল শেখ মজিবুরের ছেলে হেলাল (২৮), আইয়ুখার ছেলে শাহীন (২২), চরশিবালয়ের কুদ্দুসের ছেলে আলীম (৩০), সুনামদ্দিনের ছেলে সিরাজ উদ্দিন(৪২), মুত দুখী শেখের ছেলে জালাল উদ্দিন (৬০) কিতাব আলীর ছেলে শাওন (২৩) নুর ইসলামের ছেলে বিল্লাল (৩৫) কিয়াম শেখের ছেলে লাল মিয়া (৩৫), রুস্তম আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (২৭) জালালের ছেলে উজ্জল (২০) লাল মিয়ার ছেলে আশরাফুল (২৪), আজিজুরের ছেলে সফি (২১), মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে সজিব (১৮), চরবৈষ্টমীর আকবর মোল্লার ছেলে সাবদুল (২৩), নুরু শেখের ছেলে রাজু শেখ (২৩), রাধাকান্তপুরের রুস্তম আলীর ছেলে মামুন মিয়া (৩০), দৌলতপুর উপজেলার চরমুতাহার গ্রামের হাশেম শেখের ছেলে সামাদ (২৫), পারুল্লিয়া গ্রামের ইছাক দু’শেখের ছেলে হাসেম (৩২ ও কাশেম (৩০) করিম শেখের ছেলে আনোয়ার (২৭), হাসনাদিয়া গ্রামের মৃত স্বপন মোল্লার ছেলে শাহীন মোল্লা (৪৫), চরকালিকাপুর গ্রামের দরবেশ আলীর ছেলে আলমাছ (৩৩)।
রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার চর-দৌলতদিয়ার মৃত-বছির উদ্দিনের ছেলে জমসের শেখ (৭০), একই গ্রামের জমসের আলীর ছেলে জালাল (৬৬), মৃত সালাম সেখের দু’ছেে ল জামাল শেখ (২২), আহম্মেদ শেখ (৩২), বাবু সরদারের ছেলে-রাসেল সরদার (২২), ছালাম শেখের ছেলে মোশারফ শেখ (২৮), রবি শেখের ছেলে আনোয়ার শেখ (৩০), আজাহার শেখের ছেলে ঠান্ডু শেখ (২৫), রহমানের ছেলে উজ্জল মোল্লা (২২), একই উপজেলার চররবাট গ্রামের আজিজ মন্ডলের ছেলে ফরিদ মন্ডল (১৫) দৌলতদিয়া নতুন পাড়া গ্রামের হারেজ মোল্লার ছেলে মোহন (২৫), নিজাম মোল্লার ছেলে আসলাম মোল্লা (৩৫), অন্তরমোর গ্রামের তোফাজ্জল মন্ডলের ছেলে মজনু মন্ডল (৩৫), মৃত-রিফাজ উদ্দিনের ছেলে কালাম সরদার (৩০) ব্রাম্মনদী গ্রামের মেরাজ মোল্লার ছেলে মুসা মোল্লা (২৬) ও পাবনা জেলার বরুন্ডচর গ্রামের জাবেদ আলী সরদারের ছেলে লতিফ সরদার (২৮)।

শিবালয় উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রফিকুল আলম জানান, পদ্মা-যমুনার বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযানকালে এদের আটক করা হয়। জব্দকৃত কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। উদ্ধার কৃত ইলিশ স্থানীয় এতিমখানা ও দরিদ্রদের মাঝে বিলিয়ে দেয়া হয়েছে। অভিযান আগামী ২২ অক্টোবর পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।