শিবালয়ে ইলিশ শিকারের দায়ে ২১ জনের জেল-জরিমানা

শহিদুল ইসলাম ॥
মানিকগঞ্জের পদ্মা-যমুনায় নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ শিকারের অপরাধে গতকাল বৃহস্পতিবার শিবালয়ে আরোও ২১ জনকে আটক ও ৩৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করেছে স্থানীয় প্রশাসন। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শিবালয় ইউএনও কামাল মোহাম্মদ রাশেদ আটককৃতদের মধ্যে অপ্রাপ্ত বয়স্ক ৫জনকে বিশেষ বিবেচনায় তিন হাজার টাকা করে অর্থদন্ড ও বাকিদের এক বছর করে কারাদন্ড প্রদান করেন। উল্লেখ্য, অভিযানের চতুর্থ দিনে একই ঘটনায় আটক ১৮ জনকে উক্ত আদালতে অনুরুপ দন্ড প্রদান করা হয়।

আটককৃতরা হচ্ছে- উপজেলার আলোকদিয়া চরের গাজী মোল্লার দু’পুত্র মজনু (২৮), ফজলু (২০), মুকুল শেখের পুত্র মোবারক শেখ (৩০), সায়েদুলের দু’পুত্র মামুন (২৫), সুজন (২০), আয়নালের পুত্র নিজাম (৩০), বক্কারের পুত্র আলমগীর (৩২) মধ্যনগরের রশিদের পুত্র শাহ আলম (৩৮), শহিদ মোল্লার পুত্র আতিকুর (২৮) আশ্রয়ন কেন্দ্রের পিতা-পুত্র রমজান (৪৩) ও শামীম (২২), চররঘুনাথপুরের মজিবরের পুত্র মোহাম্মদ উল্লাহ (৩০), রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দুলাল বেপারীর পাড়ার হেলাল উদ্দিনের পুত্র আসলাম শেখ (২০), আলমাস ফকিরের পুত্র আমজাদ ফকির (২৫) লোকমান খার পুত্র আসলাম খা (২০), আলমাছের পুত্র আজাদ খা (২২) জলিল মোল্লার দু’পুত্র রহিম মোল্লা (২০) ও শহিদ মোল্লা (১৮) একই উপজেলার কুসাহা গ্রামের শুকুর আলীর পুত্র রাজন (৩৫), কাদেরের পুত্র ওহাব মন্ডল (২৫) সায়েদুলের পুত্র জহিরুল (১৮)।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রফিকুল আলম জানান, যমুনার বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযানকালে এদের আটক করা হয়। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা নূরতাজুল আলম অভিযানের নেতৃত্ব প্রদান করেন। জব্দকৃত কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়। অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।