শিবালয়ে কঠোর নিরাপত্তায় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত

মানিকগঞ্জ টাইমস রিপোর্ট ॥ আলোক সজ্জা, উলু ধ্বনি, শঙখ সুর, কাশার শব্দ, ঢাকের তালে মন্ত্র পাঠ ও প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গাপূজা গতকাল শনিবার শেষ হয়। কঠোর নিরাপত্তায় এ বছর শিবালয়ে ৭৮টি মন্দিরে পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এ পূজা উপলক্ষে সরকারী সহায়তার পাশাপাশি বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন নেতৃবৃন্দ আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। সুষ্ঠুভাবে দুর্গপূজা সম্পূন্ন হওয়ায় স্থানীয় প্রশাসন সংশ্লিষ্ট সকলকে শুভেচ্ছা জানান।
জানা গেছে, উপজেলার প্রতিটি মন্দিরে পুলিশ, আনসার, স্বেচ্ছা-সেবকদল সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। পূজা উপলক্ষে র‌্যাবসহ পুলিশের বিশেষ টিম টহল দেয়। বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরির্দশন করেন এএম নাঈমূর রহমান দুর্জয় এমপি, সাবেক এমপি এবিএম আনোয়ারুল হক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম মহীউদ্দীন, আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুস সালাম, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য এসএ জিন্নাহ্ কবীর, শিবালয় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকবর, ভাইস-চেয়ারম্যান আলী আহসান মিঠু, ইউএনও কামাল মোহাম্মদ রাশেদ, সাংবাদিক, পূজা উদ্যাপন পরিষদ ও হিন্দু মহাজোটের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এএম নাঈমূর রহমান দুর্জয় এমপি জানান, শিবালয়-ঘিওর দৌলতপুর উপজেলা তথা মানিকগঞ্জ জেলায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রতির উজ্জল দৃষ্টান্ত রয়েছে। ফলে, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার বেশি উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পূজা পালিত হয়েছে। তিনি পূজা উদ্যাপনের সর্বস্তরের লোকজন, নেতৃবৃন্দ, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ধন্যবাদ জানান।

বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি’র সদস্য এসএ জিন্নাহ্ কবীর জানান, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নির্দেশে দলীয় নেতা-কর্মীরা দুর্গাপূজা উদ্যাপনে সার্বিক সহযোগীতা করেছে। আগামীতে সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় আসলে হিন্দু ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের উন্নয়নে আরোও পরিকল্পনা গ্রহণ করবে।

জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ সভাপতি এডভোকেট অসীম কুমার জানান, সকলের সহযোগীতা ও আন্তরিকতায় এ বছর আনন্দঘন পরিবেশে পূজা অনুষ্ঠিত হয়।