শিবালয়ে বন্যার্তদের জন্য খাবার তৈরী করলেন ইউএনও

শহিদুল ইসলাম !
শিবালয়ে বন্যার্তদের জন্য নিজ হাতে খাবার তৈরী করলেন ইউএনও কামাল মোহাম্মদ রাশেদ। উপজেলার দুর্গম আলোকদিয়া আশ্রায়ন কেন্দ্রে গতকাল রবিবার দুপুরে প্রায় আড়াই হাজার দুস্থ্য লোকজনের মাঝে তৈরীকৃত খাবার বিতরন করা হয়।
জানা গেছে, উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রত্যহ ৪শ’ কেজি চাল, ১শ’কেজি করে ডাল-সবজি দিয়ে তেরীকৃত উন্নতমানের খিচুরি চরাঞ্চলে বন্যার্তদের মাঝে বিতরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শফিউর রহমান জোয়ার্দার, তেওতা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল কাদের, শিবালয় প্রেসক্লাব সভাপতি বাবুল আকতার মঞ্জুর, সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, স্থানীয় ইউপি সদস্য মতিউর রহমান ও তোফাজ্জল হোসেনসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ খাবার বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন।
তেওতা ইউপি চেয়ারম্যান জানান, বন্যা চলাকালীন দুঃস্থ্যদের মাঝে তৈরী খাবার বিতরণ অব্যাহত থাকবে।
অপর দিকে, যমুনার পানি আরিচা পয়েন্ট গত দু’দিনে ১৫ সেন্টিমিটার হ্রাস পেলেও রবিবার বিকেলে তা বিপদসীমার ৬০ সেন্টিমিটার স্তরে প্রবাহিত হচ্ছিল। শাখা নদী গুলোতে পানি স্থিতি অবস্থায় রয়েছে।
এদিকে, শনিবার রাতে সাপের কামরে আলোকদিয়া চরের জনৈক শামছুউদ্দীনের স্ত্রী দু’সন্তানে জননী মমতাজ (২২) নামে এক গৃহবধু মারা গেছে।