শিবালয়ে মানসম্পন্ন অভিবাসন নিশ্চিতে জনসচেতনামুলক সেমিনার

 

 

‘দক্ষ হয়ে বিদেশ যাই, অর্থ, সন্তান দুটোই পাই’ জেনে, বুঝে বিদেশ গেলে, বিপদ থেকে মুক্তি মেলে। বিদেশ যাব বৈধ পথে চাকরি করব নিরাপদে।

শিবালয়ে ‘নিরাপদ’ নিয়মিত ও মানসম্পন্ন অভিবাসন নিশ্চিতে মিট দা প্রেস এবং জনসচেতনা মুলক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার সকালে শিবালয় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন এ সেমিনারের আয়োজন করে।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক এস,এম ফেরদৌস।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এএফএম ফিরোজ মাহমুদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউর রহমান খান জানু, জেলা জনশক্তি ও কর্মসংস্থান দপ্তরের সহকারী পরিচালক শেখ মুস্তাফিজুর রহমান, শিবালয় সহকারী কমিশনার ভুমি মো. জাকির হোসেন, মানিকগঞ্জ কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নুর আতায়াব আহম্মেদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল কুদ্দুস।

অন্যান্যের মধ্যে মাহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুনা আক্তার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি বিকাশ সাহা, বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণ, উপজেলার বিভিন্ন্ দপ্তরের সরকারী কর্মকর্তাগণ এবং উপজেলা ও জেলার  প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উক্ত সেমিনারে জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস কারিগরি শিক্ষার উপর জোর দিয়ে বলেন,
কারিগরি শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করতে গেলে, দেশের মানুষকে দক্ষ জন শক্তিতে পরিণত করতে হবে।

আর এর জন্য এস,এস,সি পরীক্ষা পাসের পর ছেলে-মেয়েদেরকে সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিত না করে, কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করার পরামর্শ দেন তিনি।

সরকার কারিগরি শিক্ষার উপর আগের চেয়ে অনেক বেশী গুরুত্ব দিয়েছে। সে লক্ষেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। প্রতিটি উপজেলাতেই একটি করে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের কাজ শুরু হয়েছে।

তিনি আরা বলেন, অনেকেই মাষ্টার ডিগ্রী পাস করে চাকুরির আশায় বাড়িতে বেকার বসে থাকে। কিন্ত কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করে কেউ বাড়িতে বসে থাকে না।

সে নিজের জন্য চাকরি খুঁজে না, বরং অন্যের জন্য চাকরির ব্যবস্থা করতে পারে।

এসব বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে সাংবাদিকসহ সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

উপস্থিত অন্যান্য বক্তারা বলেন, কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত হয়ে বিদেশ যাওয়ার পরমর্শ দেন। দালালের মাধ্যমে বিদেশ গিয়ে প্রতারণার শিকার না হওয়ার পরামর্শ দেন বক্তরা।