শিবালয়ে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান
ডিসি অফিসের ডিলিংস লাইসেন্স সংগ্রহের নির্দেশ

মানিকগঞ্জ টাইম্স রিপোর্ট ॥

শিবালয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন কয়েকটি ডায়গনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসীতে আকস্মিক অভিযান পরিচালনা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। রবিবার দুপরে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌসের উপস্থিতি ও নির্দেশনায় শিবাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদ ৪টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ২টি ফার্মেসীতে অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে একটি ডায়গনস্টিক সেন্টার সিলগালা ও অপর দু’ ডায়াগনস্টিক সেন্টার মালিককে অর্থ দন্ড করা হয়। অপর একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসীতে কোন জরিমানা করা হয়নি।

এছাড়া, প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ডিসি অফিসের ডিলিংস লাইসেন্সসহ প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র সংগ্রহের নির্দেশ প্রদান করা হয়। শিবালয় উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মককর্তা ডা. মো. আরশ^দ উল্লাহ, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মৃদুল কুমার আচার্য্যসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগরে কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পার্শ্বে শিবালয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ইছামতি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের লোকজন না থাকায় উক্ত প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা হয়। মেডিকাল টেকনোলজিস্ট উপস্থিত না থাকায়, সেবামূল্যের রশিদ বহি না থাকা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না থাকায় একতা ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে ২০ হাজার এবং আল্ এহসান ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে ৪০ হাজার জরিমানা আদায় করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম ফিরোজ মাহমুদ এহেন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, শিবালয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা উল্লেখিত ৪টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ছাড়াও উথলী, মা মনি ও সবুজ পাহাড় নামে ৩টি ডায়াগনষ্টিক সেন্টার স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে আসছে।